কবিতা

কয়েকটি কবিতা

তুষ্টি টিলা কখনো পাহাড় পেরোতে পারে না এই দুঃখ নিয়ে সে বসে থাকে পাদদেশে ছোট ছোট ঘাস, বাদাবন, ভাঁটগাছ, কোমল বৃষ্টিফোঁটা দিয়ে নিজেকে সাজায়   নিজস্ব একটা টিলার উপর বসে আমি ছিপ...

বাসনা

রংতালের রংধনু বাতাসে আকাশটাকে ছুঁয়ে দেখা জলমেঘের সংসার আর বৃষ্টি পার্বণে আমাদের এই বন্ধন।   আজ পুনর্বার সাংসারিক মন খারাপের দিন। এখন ঘর বলতেই চোখে যথাযোগ্য শূন্যতা ভাসে আমার যাপিত...

কইন্ন্যা দর্শন সিরিজ

কইন্ন্যা দর্শন কিশোরীর মুখের মানচিত্রে নরম কুচি কুচি ঘাম সম্ভবত মাথাকাটা মুরগী তপড়াচ্ছে বুকের চাতালে ডানকাঁধে ঝোলানো সাপের মতো লম্বা চুলের বেণী মাঝারি উড়নায় ডানা ঢাকার ব্যর্থ চেষ্টা   পানের...

সিলভিয়া, নীল নাচের ভাষা

একমাত্র মৃত্যুই শিল্পের সমান বাকি যা কিছু ক্লেদের জীবন বাস্তবের কালিঝুলিতে স্বপ্নের শক্তিসঞ্চালন। ও, রোদনে পক্ব চন্দ্র, তুমি কি পাও আমার শ্বাস নেওয়ার সূর্যর্সোঁদা গন্ধ? এক কবির ভাঙচুরের ভিতে দাঁড়িয়ে থাকে আর এক কবির...

জুয়েল মাজহারের কবিতা

ধুতুরাগোধূলি এখন সকাল খুব লাল। তবু হৃদয়ে গোধূলি। আমি সদ্য বানানো নৌকার খোলের ভেতর শুয়ে; নৌকার একা-কারিগর। গাবের আঠার গন্ধে, তারপিনের গন্ধে ভরে আছে নাক।...

নির্মলেন্দু গুণের কবিতা

রাতে লেখা ফুল ফোটে গাছে, সকালের আলো আর রাত্রির তারা ফোটে আকাশে। জন্মেই চোখ ফোটে মানব-শিশুর, কুকুর ও বিড়ালের চোখ ফোটে বাতাসে। হাঁস ও মুরগীসহ পাখিদের ডিম...

স্বরলিপির কবিতা

অন্য পা বিশ্রামে পাঠাই জুতার মাপে হেঁটে আসা স্বপ্নে খোয়া যায় তল দপ্তরের চিঠি— অনিবার্য কারণে শনি থেকে বৃহস্পতি হাঁটতে হবে এক পায়ে দৌড়াতে রাজি হই। বিপত্মীক পিতার ফুলেল...

ধীমান ব্রহ্মচারীর কবিতা

গ্রামকথা   ধুলো মাখা সেই সন্ধ্যের পথ,যেখানে আলো এসে কান পেতে শোনে মাটির গল্প   সেই দূরের মৌন পাহাড়,যেখানে সন্ধ্যের তারা উকি দেয় আমার গ্রামে,বিরাট রাতের গভীরতা এখানে...

সর্বশেষ প্রকাশিত লেখা