বিশ্লেষণ

বাংলাদেশের পক্ষে আন্দোলন করে মোদি কি সত্যিই গ্রেপ্তার হয়েছিলেন?

বাংলাদেশের স্বাধীনতার পক্ষে ভারতে সত্যাগ্রহ আন্দোলনে মোদির অংশগ্রহণ ও তার গ্রেপ্তার হওয়ার ঘটনার বিষয়টি এ দেশের মানুষের কাছে নতুন বিষয় মনে হয়েছে। এ নিয়ে মানুষের মনে যে কৌতূহলের উদ্রেক হয়েছে, তা নিয়ে বাংলাদেশের সংবাদমাধ্যমে কোনো ঐতিহাসিক ব্যাখ্যা-বিশ্লেষণ হাজির করা হয়নি।

অবরুদ্ধ ‘স্বাধীনতা’র সুবর্ণজয়ন্তী

সাম্য-মানবিক মর্যাদা আর সামাজিক ন্যয়বিচারের যে বাংলাদেশের জন্য আমরা যুদ্ধ ঘোষণা করেছিলাম, এটা কি সেই বাংলাদেশ? জনগণকে ঘরবন্দি ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে দূরে রাখতে পারার এই ‘স্বাধীনতা’ই কি আমরা চেয়েছিলাম ৫০ বছর আগে?

‘আমি কয়েদি, কথা বলা নিষেধ’

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশগবার্ষিকীতে সিজেএমবি এই লেখাটি পুনঃপ্রকাশ করছে।

এক বছরে মানুষকে যা শেখালো করোনাভাইরাস

অনেকেই মনে করেন, আমরা প্রকৃতির কাছে কত অসহায়  করোনাভাইরাস তা সামনে এনেছে তবে। বাস্তবতা হলো,  বিজ্ঞানের কল্যাণে এগুলো এখন সমাধান করার মতো বিপদে পরিণত হয়েছে। তাহলে করোনাভাইরাসের কারণে এত মানুষের ভোগান্তি বা মৃত্যুর কারণ কী?   এর কারণ হলো, বাজে রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত।

রেজিম বনাম রাষ্ট্র বিতর্ক: মুশতাকের খুনি কে?

মুশতাক খুনের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অ্যাকটিভিস্টদের আলোচনায় প্রাধান্যশীল ছিল এই প্রশ্ন যে আসলে খুনী কে। এই রাষ্ট্র, নাকি ক্ষমতাসীন সরকার কিংবা তার প্রধানমন্ত্রী।

ক্রিকেটকে ‘দেশপ্রেমের অবসেসন’ থেকে মুক্ত করছেন সাকিব?

দেশপ্রেম বরং "লগন" সিনেমায় ইউটোপিয়া হয়েই থাকুক। সাকিব আইপিএল মাতাক। পুঁজির দুনিয়ায় দেশ একটা অসুবিধাজনক আইডেন্টিটি। বরং সাকিবই সত্য।

আফ্রিকার এক আধ্যাত্মিক কণ্ঠস্বরের অকাল মৃত্যু

কোরানের বিষয়বস্তু ও শাব্দিক অর্থ মুসলিম দুনিয়ায় বেশ বড় পরিসরে একইভাবে গ্রহণযোগ্য হলেও তা পাঠের ক্ষেত্রে আঞ্চলিক সুর ও বৈশ্বিক ভাষার অভূতপূর্ব মিশ্রণ লক্ষ্য করা যায়। আঞ্চলিক সুর ও বৈশ্বিক বা সার্বজনীন ভাষাতত্ত্বের যে অভূতপূর্ব সম্মেলন, সেটাই আসলে ইসলামেরও মূল কথা।

হোয়াইট হাউসের ‘ব্ল্যাক’ ইতিহাস

হোয়াইট হাউস নির্মাণের প্রক্রিয়ায় কত সংখ্যক দাসকে ব্যবহার করা হয়েছিল তা কখনও কেউ হয়তো জানতে পারবে না। তবে নির্মাণ কাজে কতটা নিষ্ঠুরভাবে শ্রমিকদের ব্যবহার করা হয়েছিল তা আন্দাজ করা গেছে।

বিল গেটসের থাবায় আফ্রিকায় বাড়ছে ক্ষুধা আর দারিদ্র্য

বিশ্বের প্রচারমাধ্যমগুলো যেমন করে বলতে চায়, তাতে মনেই হয়, স্ত্রী ও তার নিজের নামে প্রতিষ্ঠিত কথিত দাতব্য সংস্থা বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন বুঝি অকাতরে পুরো বিশ্বের মানুষকে সাহায্য করে যাচ্ছে। তবে এটি আংশিক সত্য। এর আড়ালে লুকিয়ে আছে ভয়ংকর বাস্তবতা।

সর্বশেষ প্রকাশিত লেখা